ব্রেকিং নিউজ :
দীর্ঘসূত্রিতা, অপচয় ও দুর্নীতির সুযোগ সৃষ্টি করে : প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সাথে কুয়েতের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ দেশকে সমৃদ্ধির পথে নিয়ে যেতে তৈরি হও : নতুন প্রজন্মের প্রতি প্রধানমন্ত্রী বন্যার্ত মানুষের চিকিৎসা সেবায় মাঠে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ সময়োচিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারলে প্রতিষ্ঠান দ্রুত এগিয়ে যাবে : বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী দক্ষতা অর্জনে উন্নত প্রশিক্ষণের বিকল্প নাই : বিএসএমএমইউ উপাচার্য সেবা নিতে এসে একজনও যেন বিমুখ না হন : শিক্ষামন্ত্রী টিপু হত্যা : শুটার মুসার দায় স্বীকার এসএমই খাতকে শক্তিশালী করতে সরকার সহযোগিতা দিয়ে যাবে : প্রধানমন্ত্রী প্রথম ৮ ঘন্টায় ১৫ হাজার ২০০ যানবাহন পারাপার
  • আপডেট টাইম : 06/04/2022 07:48 PM
  • 52 বার পঠিত

 প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বাংলাদেশ সরকার প্রবাসীদের মর্যাদা ও অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করছে।
মন্ত্রী গতকাল সকালে আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিনে সেদেশের সরকার এবং আন্তর্জাতিক অভিবাসী সংস্থা (আইওএম) আয়োজিত ২০২২ সালের বিশ্ব প্রবাসী (ডায়াসপোরা) সম্মেলনে বক্তৃতাকালে একথা বলেন। 
আয়ারল্যান্ডের ডায়াসপোরা ডেভেপলপমেন্ট এইড এন্ড ডায়াসপোরা মন্ত্রী কোম ব্রফি টিডি এবং আইওএম’র ডিরেক্টর জেনারেল এন্টনিও ভিটোরিনোসহ বিভিন্ন দেশের মন্ত্রীরা ও  প্রতিনিধি দলের সদস্যরা এ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।
প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, ‘প্রবাসী বাংলাদেশীরা শুধুমাত্র রেমিট্যান্স নয় বরং বিদেশি প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, জ্ঞান ও দক্ষতা বিনিময়সহ জনকল্যাণমুখী কাজও করে থাকে। যা কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে এবং আমাদের সামষ্টিক-অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে সরাসরি অবদান রাখছে।’
তিনি বলেন, জাতীয় প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নে প্রবাসী সম্পদের টেকসই অবদানকে স্বীকৃতি প্রদান ও মূলধারায় আনার ক্ষেত্রে সরকার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে ।
বুধবার ঢাকায় প্রাপ্ত এক সরকারি তথ্য বিবরণীতে এসব কথা জানানো হয়।
এতে বলা হয়. ওই সম্মেলনে ইমরান আহমদ বলেন, বাংলাদেশ গ্লে¬াবাল কমপ্যাক্ট ফর মাইগ্রেশন (জিসিএম) একটি চ্যাম্পিয়ন দেশ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিয়ানমারের ১০ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়েছেন এবং ঢাকায় গ্লে¬াবাল ফোরাম অন মাইগ্রেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট (জিএফএমডি) সম্মেলনের আয়োজন করে বিশ্বব্যাপী অভিবাসন শাসনের ধারণার পথ দেখিয়েছেন। তাই জিসিএম’র উদ্দেশ্য-১৯ বাস্তবায়নে বাংলাদেশ সম্পূর্ণভাবে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তিনি বলেন,‘জিসিএম চ্যাম্পিয়ন দেশ হিসেবে, আমরা ইতোমধ্যেই উদ্দেশ্য-১৯ সহ জিসিএম’র ২৩টি উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্য জাতীয় কর্মপরিকল্পনা চূড়ান্ত করেছি।’
সম্মেলনে মন্ত্রী সকল দেশের প্রবাসীদের অধিকার ও মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় জন্য একটি আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক তৈরি করার আহ্বান জানান। এছাড়াও তিনি প্রবাসীদের সামগ্রিক কল্যাণ নিশ্চিত করতে প্রবাসী ও অভিবাসী ইস্যুক সমান গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, লন্ডনে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম প্রমুখ এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...