ব্রেকিং নিউজ :
সার্কভুক্ত দেশ নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপের সাথে বাণিজ্য উদ্ধৃত্ত রয়েছে : বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী ভোলায় বিকল্প কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে জেলেদের মধ্যে বাছুর বিতরণ জয়পুরহাটে আওয়ামীলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবর্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন সাহসিকতার সঙ্গে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে উন্নত পুলিশী সেবা দিন : শেখ হাসিনা জনগণের আস্থা অর্জন ও ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় দলকে সুসংগঠিত করতে নেতাকর্মীদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান সেনা প্রধানকে জেনারেল র‌্যাংক ব্যাজ পরানো হয়েছে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নবনিযুক্ত সেনাবাহিনী প্রধানের সৌজন্য সাক্ষাৎ ১৫ বছরে বিদেশে ১১ লাখ ১৪ হাজার নারী কর্মীর কর্মসংস্থান হয়েছে : বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী উদযাপিত
  • প্রকাশিত : ২০২৪-০৪-২০
  • ২১২৩৫৫৬ বার পঠিত
  • নিজস্ব প্রতিবেদক
ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র দূরদর্শী নেতৃত্বে স্মার্ট হবে আগামীর কৃষি। কৃষি সমৃদ্ধির মাধ্যমে এর সুফল পাবে দেশ ও দেশের কৃষক। আজ শনিবার দুপুরে জেলার সিংড়া উপজেলা পরিষদ হলরুমে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মধ্যে বিনামূল্যে পাট ও আউশ বীজ এবং সার বিতরণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অনলাইনে সংযুক্ত হয়ে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।  
সিংড়া উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে ৩ হাজার ৫০০ কৃষকের মধ্যে পাঁচ কেজি করে আউশ ব্রিধান-৯৮ বীজ এবং দশ কেজি ডিএপি ও দশ কেজি এমওপি সার বিতরণ এবং এক হাজার ৯০০ কৃষকের মাঝে এক কেজি করে পাট বীজ বিতরণ করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার হা-মীম তাবাসসুম প্রভা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ খন্দকার ফরিদ এবং উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা হক রোজি।
ডিজিটাল বাংলাদেশের আর্কিটেক্ট, স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে পলক বলেন, “আমরা যার দিক নির্দেশনা এবং মেধাবী নেতৃত্বে  ডিজিটাল বাংলাদেশ সফলভাবে বাস্তবায়ন করতে পেরেছি। সিংড়া উপজেলা কমপ্লেক্সের পঞ্চম তলায় তার নামে ‘জয় সেট সেন্টার’ স্থাপন করছি। এই সেন্টারে আমাদের কৃষকদের আধুনিক প্রযুক্তি সম্পর্কে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। আমরা ‘স্মার্ট এগ্রিকালচার’ নামে একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছি, যেটা দশটি উপজেলার দশটি গ্রামে পাইলটিং করা হচ্ছে। ইন্টারনেট অব থিংস, ডেটা অ্যানালিটিক্স, মেশিন লার্নিং এবং যান্ত্রিকীকরণের জন্য সিংড়াকে এই দশটি উপজেলার একটি হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। 

তিনি বলেন, এখানে কৃষি গবেষণার জন্য একটি ইনস্টিটিউট স্থাপন করা হবে, যার মাধ্যমে চলনবিলের কৃষির উন্নয়ন এবং উৎপাদনকে আমরা এগিয়ে নিতে পারবো। ইতোমধ্যে প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকার ‘চলনবিল উন্নয়ন প্রকল্প’ আমরা হাতে নিয়েছি, যার অধিকাংশ কাজ হবে আমাদের সিংড়া উপজেলায়। তিনি বলেন,  চলনবিলের সিংড়া সারা বাংলাদেশের কাছে শস্যভান্ডার ও মৎস্যভান্ডার হিসেবে সুপরিচিত। আমরা এটাকে আরও সমৃদ্ধ করতে চাই। 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
#
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat