• প্রকাশিত : ২০২২-১২-১০
  • ২৮০ বার পঠিত
  • নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন বলেছেন, রাশিয়া আপাতত পারমাণবিক হামলার ধারণার পরিবর্তে শত্রুকে নিরস্ত্র করার জন্য প্রচলিত আগাম হামলার সামরিক নীতি প্রবর্তন করে তার সামরিক নীতিমালা সংশোধন করতে পারে।
এই সপ্তাহের শুরুতে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারে পুতিনের দেয়া বক্তব্যের বিষয়টি স্পস্ট করার জন্য শুক্রবার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পুতিন এ কথা বলেন।  
ক্রমবর্ধমান পরমাণু যুদ্ধের ঝুঁকি সত্বেও রাশিয়া প্রথমে হামলা চালাবে না বলে সতর্ক করার মাত্র কয়েকদিন পর সাংবাদিকদের পুতিন বলেন, মস্কো প্রচলিত আগাম হামলার সামরিক নীতি বিবেচনা করছে। যেটি ওয়াশিংটন তাদের কথিত ‘প্রি-এমপটি’ হামলা হিসেবে গ্রহণ করে আসছে।
পুতিন কিরগিজস্তানে সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রথমত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি পূর্বনির্ধারিত স্ট্রাইকের ধারণা রয়েছে। দ্বিতীয়ত, এটি একটি নিরস্ত্রীকরণ স্ট্রাইক সিস্টেম তৈরি করছে।’
পুতিন বলেছেন, মস্কোকে তাদের ‘নিজস্ব নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য’ মার্কিন আগাম হামলার ধারণা গ্রহণের বিষয়ে ভাবতে হবে।
তিনি বলেন, ‘আমরা শুধু এটি সম্পর্কে চিন্তা করছি।’
পুতিন দাবি করেছেন, রাশিয়ার ক্রুজ মিসাইল এবং হাইপারসনিক সিস্টেমগুলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় ‘আরও আধুনিক এবং এমনকি আরও কার্যকর’।
বুধবার পুতিন সতর্ক করে বলেছেন, পারমাণবিক উত্তেজনা বাড়ছে যদিও তিনি জোর দিয়েছেন যে, মস্কোই প্রথম পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েন করবে না।
একই সাথে তিনি বলেন, ‘যদি আমরা কোন পরিস্থিতিতে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারে প্রথম না হই, তা সত্বেও আমরা সেগুলো ব্যবহার করার জন্যও দ্বিতীয়ও হবো না।’
একই দিনে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর রাশিয়ান নেতাকে তিরস্কার করে বলেছে, ‘পরমাণু অস্ত্রের বিষয়ে কোনো আলগা কথাবার্তা একেবারেই কান্ডজ্ঞানহীন।’
 কয়েক দশক ধরে জনসচেতনতা থেকে পরমাণু হামলার ধারণা মুছে গেছে। পুতিন যখন গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে অভিযান শুরু করে তখন থেকেই আবার পরমাণু যুদ্ধের দুঃস্বপ্ন প্রাধান্য পেয়েছে এবং ¯œায়ু যুদ্ধের বৈশ্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থার অবক্ষয় শুরু হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
#
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat