ব্রেকিং নিউজ :
সবাইকে আদালতের আদেশ মানতে হবে, পুলিশ আইন লঙ্ঘন বরদাশত করবে না : ডিএমপি কমিশনার বগুড়ায় প্রাইভেটকার-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২ বান্দরবানে কেএনএফ সদস্য সন্দেহে আটক ৫ জন কারাগারে মুন্সীগঞ্জে বাইক দুর্ঘটনায় মোটর মেকানিক নিহত শরীয়তপুরে আমনের আবাদ বাড়াতে কাজ করছে কৃষি বিভাগ দেশের মানুষের যৌক্তিক দাবির প্রতি আওয়ামী লীগ সর্বদা আন্তরিক : ওবায়দুল কাদের যুবলীগ এখন সুসংগঠিত মানবিক যুব সংগঠন : যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নজরুলের বিদ্রোহী চেতনা ধারণ করেই বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনেছিলেন : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী সার্কভুক্ত দেশে স্থানীয় মুদ্রায় বাণিজ্য করলে অর্থনীতি শক্তিশালী হবে : বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর আন্দোলনকারীরা বক্তব্য দিতে চাইলে আপিল বিভাগ বিবেচনায় নেবেন : আইনমন্ত্রী
  • প্রকাশিত : ২০২৪-০৬-২২
  • ৪৩৪৫৪৯৫ বার পঠিত
  • নিজস্ব প্রতিবেদক
মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনভিত্তিক  চলচ্চিত্র ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার' এর প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মালয়েশিয়ার  প্রখ্যাত মাল্টিমিডিয়া ইউনিভার্সিটিতে (এম এম ইউ) শুক্রবার  (২১  জুন) সন্ধ্যায়  সিনেমাটি প্রদর্শিত  হয়।
কুয়ালালামপুরস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের উদ্যোগে আয়োজিত এ সিনেমাটির প্রদর্শনী শেষে প্রবাসী বাঙালি এবং বিভিন্ন দেশের দর্শকরা সিনেমার নির্মাণশৈলীর প্রশংসা করেন।
বঙ্গবন্ধুর সংগ্রাম, দেশের প্রতি মমত্ববোধ এবং বিপথগামীদের হাতে তাঁর  সপরিবারে মর্মান্তিক মৃত্যু দেখে অনেক  দর্শকরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।
মালয়েশিয়ায়  নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. শামীম আহসান ও তার সহধর্মিনী পেন্ডোরা চৌধুরী , মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বি এন রেড্ডি , মাল্টিমিডিয়া ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী অধ্যাপক দাতো ড. মাজলিহাম মো. সৌদ, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ মালয়েশিয়ার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, বিভিন্ন  দেশের কূটনীতিক কোরের সদস্য ,  বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিপুল সংখ্যক  শিক্ষার্থী, ফ্যাকাল্টি মেম্বার, স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক এবং   হাইকমিশনের  কর্মকর্তাবৃন্দ সপরিবারে  চলচ্চিত্রটি উপভোগ করেন।
বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় ভারতের প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক  শ্যাম বেনেগাল পরিচালিত ‘মুজিব-দ্য মেকিং অব আ নেশন’  প্রদর্শনীর পূর্বে সিনেমার প্রেক্ষাপট তুলে ধরেন বাংলাদেশের  হাই কমিশনার মো. শামীম আহসান এবং  ভারতীয় হাইকমিশনার বি এন রেড্ডি।  বাংলাদেশের হাইকমিশনার তার স্বাগত বক্তব্যে বলেন, বাঙালিদের জন্য স্বাধীন রাষ্ট্র বাংলাদেশ বিনির্মাণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু  শেখ মুজিবুর রহমানের আপোষহীন সংগ্রাম এবং বাঙালি জাতির জন্য অপরিসীম ত্যাগ এই সিনেমার মাধ্যমে  নিপুণভাবে তুলে ধরা হয়েছে।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন কালোত্তীর্ণ ব্যক্তিত্ব এবং সম্মোহনী নেতা । এ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর জীবনীর পাশাপাশি ইতিহাসের ঘটনাপ্রবাহ সুন্দরভাবে ফুটে উঠেছে।  
তিনি আরো বলেন,  শুধু বাঙালি জাতি নয় পৃথিবীর সকল স্বাধীনতাকামী মানুষ এবং জাতির জন্য বঙ্গবন্ধু প্রাসঙ্গিক  কারণ  বঙ্গবন্ধু শুধু  রাজনীতিবিদ নয়, তিনি ছিলেন মানবিক একজন মানুষ।  নির্যাতিত  মানুষের অধিকারের  জন্য আজীবন সংগ্রাম করেছেন বঙ্গবন্ধু ।
ভারতীয় হাইকমিশনার তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শুধু বাংলাদেশের একজন নেতা ছিলেন না,  তিনি ছিলেন দক্ষিণ এশিয়ার ইতিহাসে এক অনন্যসাধারণ  ব্যক্তিত্ব।  তাঁর অদম্য স্পৃহা,  জনগণের প্রতি অপরিসীম  ভালোবাসা  এবং স্বাধীনতার অর্জনে অটল অঙ্গীকার উপমহাদেশের সম্মিলিত চেতনায় একটি অমোঘ চিহ্ন রেখে গেছে।
তিনি আরো বলেন, ছবিটি বঙ্গবন্ধুর অসাধারণ যাত্রা, তাঁর আত্মত্যাগ এবং অটল সংকল্পের উদযাপন।
বঙ্গবন্ধুর মত অনন্যসাধারণ ব্যক্তিত্বের জীবনীভিত্তিক সিনেমা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের সামনে  প্রদর্শনের জন্য মাল্টিমিডিয়া ইউনিভার্সিটিকে ভেন্যু হিসেবে  নির্ধারণের জন্য সংস্থার প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী অধ্যাপক দাতো ড. মাজলিহাম মো. সৌদ বাংলাদেশ হাইকমিশনকে আন্তরিক  ধন্যবাদ জানান। ভবিষ্যতে হাইকমিশনের এ ধরনের আরো  আয়োজনের সাথে সম্পৃক্ত থাকার আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ  প্রযোজনায় নির্মিত এই বায়োপিকের শুটিং ২০২১ সালের ২২ জানুয়ারি ভারতের মুম্বাই ফিল্ম সিটিতে শুরু হয়ে ১৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশে শেষ হয়। ২০২২ সালের ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীতে চলচ্চিত্রটির প্রথম পোস্টার, ৩ মে দ্বিতীয় পোস্টার এবং ১৯ মে ফ্রান্সের কান চলচ্চিত্র উৎসবে সিনেমাটির ট্রেলার রিলিজ হয়েছিল। ২০২৩ সালের ১৩ অক্টোবর সিনেমাটি মুক্তি পায়।
সিনেমাটি প্রদর্শনীর পূর্বে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রার উপর প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শিত হয়। অতিথিদের বাংলাদেশি এবং মালয়েশিয়ার  ঐতিহ্যবাহী খাবারে আপ্যায়ন করা হয়। মাল্টিমিডিয়া ইউনিভার্সিটির মিশর ও ভুটানের দুই শিক্ষার্থীর অনবদ্য  সঞ্চালনা  দর্শকদের আকৃষ্ট  করে।
বাংলাদেশ  হাইকমিশনের চলমান  জনকূটনীতি কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় মালয়েশিয়ার বৃহত্তর   জনগোষ্ঠীর  কাছে বাংলাদেশকে ইতিবাচকভাবে তুলে ধরার অংশ হিসেবে এই চলচ্চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
#
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat